The beginning of civilization, Harappa and Mohenjodaro

The beginning of civilization, Harappa and Mohenjodaro

সভ্যতার সূচনা হরপ্পা ও মহেঞ্জোদারো

The beginning of civilization, Harappa and Mohenjodaro

আনুমানিক 500,000 খ্রি. পূর্ব → মনুষ্যবসতির সূচনা 
500,00 - 8000  খ্রি. পূ.প্রাচীন প্রস্তরযুগ ( Palaeolithic ) 
⇒ মানষ কৃষিকাজ ও আগুনের ব্যবহার জানতাে না মানুষ ছিল খাদ্য সংগ্রাহক, খাদ্য উৎপাদক নয়। অমসৃণ ও অসুন্দর বৃহৎ বৃহৎ পাথরের হাতিয়ারের ব্যবহার জানতাে ( নিদর্শন আবিস্কৃত কাশ্মীরে এবং ছােটনাগপুর মালভূমি অঞলে )। 

8000 - 4000 খ্রি. পূ.ভারতের মধ্যপ্রস্তর যুগ ( Mesolithic Age )  
⇒ পাথরের হাতিয়ারের ক্ষুদ্র আকৃতি, জীবজন্তুকে পােষ মানানাে, মৃৎশিল্প ও কৃষিকার্যের সূচনা ( শেষের দিকে )। 

6000 খ্রি. পূ. - 2500 খ্রি. পূ.নব্য প্রস্তর যুগ। 
⇒ কৃষিকাজ ও পশু পালন, স্থায়ী বসতি।কুমারের চাকা আবিষ্কার। ধান - গম - বার্লির উৎপাদন।   
1300 খ্রি. পূ. তাম্রপ্রস্তর যুগ ( chalcolithic Age ) 
⇒ পশুপাখির গৃহপালন – কৃষিকাজ 
গৃহপালিত পশু - গরু , ভেড়া , ছাগল , শুকর , মহিষ। হরিন - শিকার।গরুর মাংস ভােজন। ধান ও গম প্রধান শস্য। মসুর ডাল উৎপাদন। গ্রামীন অর্থনীতি। তুলা উৎপাদন, তিসি উৎপাদন। 
বয়সে সিন্ধু বা হরপ্পা সভ্যতা তাম্র প্রস্তর যুগের চেয়ে প্রাচীন। কিন্তু তাম্রপ্রস্তর যুগের চেয়ে হরপ্পা সভ্যতাগুলি অনেক বেশি উন্নত। 

হরপ্পা / সিন্ধু সভ্যতা ( 3000 – 1500 খ্রি .পূ ) 

➧ 250 টি কেন্দ্র আবিষ্কৃত হয়েছে  
➧পাথরের ব্যবহার কমে ব্রঞ্জ ও তামা ব্যবহার বৃদ্ধি 
➧বিস্তার – 13 লক্ষ বর্গকিমি
Harappa and Mahenjodaro spread
হরপ্পা সভ্যতার বিস্তার

নগর পরিকল্পনা ➝ সব জায়গায় একই সংস্কৃতি ও জীবন যাত্রার ছাপ। মহেঞ্জাদারােতে স্নানাগারের আবিষ্কার।  আয়তন 108 ফুট / 11.488 x 7.01 মিটার ও গভীরতা 2.43 মিটার। এখানেই কেন্দ্রীয় শস্যাগার আবিষ্কার হয়েছে। আয়তন 200 x 150 ফুট / 45.71x15.23 মিটার। বাড়ী গুলি পােড়া ইটের তৈরী, হরপ্পার পৌর শাসকরা গৃহ নির্মাণ সংক্রান্ত আইন - কানুন মেনে চলতেন। 
কৃষি ➝ সিন্ধু নদে প্রতিবছর প্লাবনের কারণে এই অঞল কৃষিতে খুবই উর্বর ছিল। বন্যার জল সরে যাওয়ার পর নভেম্বর মাসে সিন্ধুবাসী বীজ বপন করতাে ও এপ্রিল মাসে পুনরায় বর্ষা হওয়ার আগে ফসল তুলে নিত। প্রধান ফসল গম ও বার্লি, ( রাই , মটর ) লাঙল / নিড়ানি ( Hoe ) এর ব্যবহার জানতাে। লােথালে ধান উৎপন্ন হত। কাঠের লাঙল ব্যবহৃত হত। পাথরের কাস্তে। সিন্ধুবাসীরাই পৃথিবীতে প্রথম তুলা উৎপন্ন করে। 
পশুপালন ➝ গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া, শুকর ছিল প্রধান গৃহপালিত পশু। এছাড়া কুকুর, বিড়াল, উট, গাধা, ঘােড়া সম্ভবত পােষ মানেনি। 
কারিগরি ও প্রযুক্তি ➝ টিন + তামা = ব্রোঞ্জ এর ব্যবহারে সুদক্ষ ছিল। কিন্তু ধাতুর দুষ্প্রাপ্যতার জন্যে ব্রোঞ্জের ব্যবহার ব্যাপক হয়নি। টাকুর ( Spindle ) ব্যবহার। ভাটিখানা, সীলমােহর ও টেরাকোটা ছিল গুরুত্বপূর্ণ জীবিকা।  ➧ব্যবসা বাণিজ্য ➝ 
আমদানি হত ー ( a ) দাক্ষিণাত্য → দামীপাথর ( b ) রাজপুতনা → তামা ( c ) কাথিয়াবাড় – শঙ্খ ( d ) বেলুচিস্তান, আফগানিস্তান, ইরান → সােনা, রুপা, সীসা, টিন। 
রপ্তানি হত  তুলাে - সুতী বস্ত্র ( প্রধান ), তামা, হাতির দাঁতের তৈরি জিনিস। 
** লােথাল বিশ্বের প্রাচীনতম বন্দর। 
যানবাহন ➝গাধা, চাকাযুক্ত গরুর বা ষাঁড়ের গাড়ি। 
বিলাসব্যাসন ➝ সুতী ও পশমের বস্ত্রের ব্যবহার। দেহের উর্ধাংশ ও নিম্নাঙ্গ দুখণ্ড বস্ত্র দিয়ে আবৃত করত। নারী পুরুষ উভয়েই লম্বা চুল রাখত। মেয়েরা সােনা ও রুপাের ফিতে দিয়ে চুল বাঁধত, খোঁপা বানাতাে, এছাড়া তামা, ব্রোঞ্জ, রুপা ও পাথরের তৈরি নানা আকারের অলংকার ব্যবহার করতাে। যেমন – হার, দুল, চুড়ি, মল, কটিবন্ধ, মালা। 
গৃহস্থালীর দ্রব্যাদী ➝ পাথর মাটি, তামা, সীসা, ব্রোঞ্জের তৈরি নানা সরঞ্জাম আবিষ্কৃত হয়েছে। তামা, ব্রোঞ্জ, পাথরের কুঠার, বর্শা, তীর, ধনুক, মুষল, প্রভৃতি অস্ত্রের সন্ধান পাওয়া গেলেও ঢাল, বর্ম, শিরস্তান প্রভৃতি আত্মরক্ষামূলক অস্ত্রের সন্ধান মেলে। নৃত্য, গীত, পশুশিকার, পাশাখেলা, রথচালনা ছিল তাদের অবসর বিনােদনের উপায়। 
শ্রেণিবিভক্ত সমাজ ➝ ঘরবাড়ী ও অন্যান্য উপকরণ দেখে অনুমান করা যায় সমাজে শাসক, ধনী, দরিদ্র শ্রমিক ও কারিগরেরা বাস করত। ক্রীতদাস প্রথা চালু ছিল।  
ধর্ম ➝ অনেক অর্ধ নগ্ন নারীমূর্তি মিলেছে, যেগুলিকে মাতৃমূর্তি বা ভূমাতৃকা বলা হয়। একটি সীলে বাঘ, হাতী, গন্ডার, মােষ ও হরিণ - এই পাঁচটি পরিবৃত ও ত্রিমুখ বিশিষ্ট ধ্যান মগ্ন এক যােগী মূর্তিকে দেখা যায়। মুর্তিটির মাথায় দুটি শিং আছে। একে অনেকে শিবমূর্তি মনে করেন।
সম্ভবত সিন্ধুবাসীদের মধ্যে বৃক্ষ, আগুন, জল, সাপ, বিভিন্ন জীবজন্তুর, লিঙ্গ ও যােনি পূজা এবং সূর্য উপাসনাও প্রচলিত ছিল।
বেদ পুরাণ ➝ ঋকবেদে 18টি পুরাণ আছে, এগুলি হল বলা ( 1 ) মৎস ( 2 ) ভবিষ্য ( 3 ) ব্রক্ষান্ড  
( 4 )  ব্রক্ষা  ( 5 ) বরাহ ( 6 ) বায়ু ( 7 ) নারদ ( 8 ) লিঙ্গ ( 9 ) কর্ম ( 10 ) ভাগবং ( 11 ) ব্রক্ষ ( 12 ) বৈবর্ত 
( 13 ) বামন ( 14 ) বিষ্ণু  (15 ) অগ্নি  ( 16 )পদ্ম  ( 17 )গরুঢ্  ( 18 ) স্কন্দ
লিপি - ওজন - পরিমাপ  
সিন্ধুবাসীর লিপিতে বর্ণমালা নেই, কেবল ছবি আছে। এগুলি বিত্তশালীরা তাদের হিসাব রক্ষার কাজে ব্যবহার করতেন। তারা আয় ব্যায়ের হিসাব রক্ষা করতে জানতেন। শহরবাসীরা বিভিন্ন ওজনের বাটখারা ব্যবহার করত।  ওজনের সময় মূলত 16 বা তার গুণিতক ব্যবহৃত হত। 
যথা :  16 , 64 , 160 ইত্যাদি। এছাড়াও মাপ করার চিহ্ন সম্বলিত কয়েকটি লাঠিও আবিস্কৃত হয়েছে।  
⠅⠅দেবরাজ ইন্দ্ৰই সভ্যতার ধ্বংসকারী এরকম মনে করা হয়। তবে আর্য আক্রমণ ধ্বংসের একটি অন্যতম কারণ। 

হরপ্পা সভ্যতার গুরুত্বপূর্ণ স্থান : 

 জায়গার নাম 
 আবিষ্কারক
 বর্তমান অবস্থান 
  হরপ্পা

 মহেঞ্জোদারাে 

 কালিবঙ্গান

 লােথাল

 বনােয়ালী

 রােপার

 আলমগীরপুর 
 দয়ারাম সাহানী ( 1991 )

রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায় ( 1922 )

অমলানন্দ ঘােষ, বি . বি . লাল

S . R . Rao ( 1957 )

R . S . Bist ( 1973 )

Y . D . Sharma ( 1955-56 )


Y . D . Sharma 
 মন্টগােমারী ( পঞ্জাব )   পাকিস্তান
সিন্ধু অঞল ( পাকিস্তান )

হনুমানগড় ( রাজস্থান )

আমেদাবাদ ( গুজরাট )

হিসার ( হরিয়ানা ) 

পাঞ্জাব ( শতদ্রু নদীর তীরে  )

মিরাট ( হিন্দন নদী )

ঐতিহাসিক নদীর বর্তমান নাম :

 নদী 
বর্তমান নাম  
Kubha
কাবুল  
 গোমতী 
গোমাল  
 সিন্ধু 
ইন্দাস  
 সুষমা 
 সোহন 
 ভাতিস্তা 
ঝিলম  
 অক্ষিনী
চেনাব  
 বিপাসা 
বিয়াস  
পুরুষনি  
রবি  
 শতদ্রু 
Sutlej 
সরস্বতী  
ঘর্ঘরা / রক্ষী  
সদারিনা  
গণ্ডক  


এক্সাম ক্র্যাক স্পেশাল :

* যতগুলো শহর আবিষ্কৃত হয়েছে তার মধ্যে মহেঞ্জোদারো এবং কালিবঙ্গান সবথেকে বড় 
মহেঞ্জোদারো : সবথেকে বড়
* পশুপতি শিবলিঙ্গ 
* ব্রোঞ্জের তৈরী নৃত্য মেয়ের মূর্তি 
* এর অর্থ মৃতের স্তুপ 
* Great Bath ( 39f x 23f x 8f )
* বোনা কাপড় 
* Great Ganary ( 150ft x 5oft )
* Unicon Seals ( ঘোড়ার মাথার সিল )
* Beared Priest ( দাড়িওয়ালা সাধু )
** Great Bath ছিল পোড়া মাটির তৈরী এবং জিপসামের ব্যবহার দেখা যায় কিন্তূ কোনো পাথর ব্যবহার হয়নি 

চাহুনদাড়ো :
* একমাত্র শহর যেটাতে শস্যক্ষেত্র নেই 
* এখানে Ink Pot পাওয়া গেছে 
* ধাতু ব্যবহার হয়েছিল Gold, Silver, Tin, Copper

কালিবঙ্গান :
* আগুনের বেদি  ( Fire Alters )
* Camels Bones 
* দুই ধরনের কবর ( বৃত্তাকার ও আয়তাকার )
** কেবল মাত্র কবর পাওয়ায় কালিবঙ্গান এবং হরপ্পা তে কিন্তূ কালিবঙ্গান আগে 
* এখানে পোড়া ইঁটের ব্যবহার হয়নি 
* কালোচুড়ি 

ধোলাভিরা :
* অন্যান্য শহরের মতো এখানে দুটির বদলে তিনটি আলাদা বিভাজন পাওয়া যায়
* সিন্ধু স্ক্রিপ্টে লেখা একটি সাইনবোর্ড পাওয়া যায় 

হরপ্পা :
* বাক্সবন্দী কবর ( Graveyard caffin Burial )
* প্রথম শহর যেটা আবিষ্কার করা হয়েছিল 
* তামার তৈরী গরুর গাড়ি 
* দুলাইন শস্যাগার ( Two rows of granaries )
* বৃত্তাকার ইঁটের বেদি 
* ইঁটের চুল্লী
* তামা ও ব্রোঞ্জের তৈরী ছাঁচ
** বাবলিওন এবং মেসোপটেমিয়া সভ্যতা সিন্ধু সভ্যতার সমসাময়িক 

লোথাল :
* Artificial Dockyard 
* Rice Evidence
* পার্সিয়ান সিল - মেসোপটেমিয়া  সভ্যতার সাথে যোগাযোগ ছিল 
* প্রধান সমুদ্র বন্দর, একে হরপ্পার ম্যাঞ্চেস্টার বলা হয় 

No comments:

Post a comment